google

Loading

facebook

CHITIKA

ব্যাটিং লাইনে পরিবর্তনের আভাস

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামের পরিসংখ্যান কথা বলছে স্পিনারদের পক্ষে। এই মাঠে বাংলাদেশের সাফল্যও বেশি, ৯টি ম্যাচে ৪টি জিতেছে আর পাঁচটি ম্যাচে হেরেছে। বাংলাদেশের চারটি ম্যাচের জয় এসেছে স্পিনারদের হাত ধরে। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই ম্যাচেও স্পিনারদের কথা প্রাধান্য দিয়ে সাজানো হচ্ছে দলের কম্বিনেশন। শুক্রবারের ম্যাচে বাংলাদেশ দলে দেখা যাবে চারজন স্পিনার এমন সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। আবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের পর দলে অনেক কাটা ছেঁড়া হতে পারে এই সম্ভাবনাও দেখা দিচ্ছে। কোচ জেমি সিডন্স এবার তিনি নিজে সাজাবেন তার সেরা একাদশ। যে একাদশে জায়গা পাওয়া নিয়ে অনিশ্চিত দোলাচলে দুলছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ হওয়ার পর বোলিং দিয়ে পুষিয়ে দিলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচে সবার মত তিনিও বাজে পারফর্ম করেছেন। আর এ কারণে দলের কম্বিনেশন পরিবর্তন করতে তার উপর চালানো হতে পারে খরগ এমন আভাষ পাওয়া যাচ্ছে টিম ম্যানেজম্যান্ট থেকে। শুধু আশরাফুল নন, দলে মিডল অর্ডার পরিবর্তনের কথা ভাবছেন কোচ সিডন্স নিজে। আব্দুর রাজ্জাক, মাহমুদুলস্নাহ রিয়াদ, নাঈম ইসলামের সাথে আরো একজন স্পিনার বাড়ানোর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। আর সেরা একাদশের সুযোগের তালিকায় ঢুকে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সোহরাওয়ার্দী শুভ'র নামটি। গতকাল নেট অনুশীলনে শুভ'র বোলিং প্রাকটিস এবং আলাদা করে ব্যাটিং প্রাকটিস সেই সম্ভাবনাই ফুটে উঠছে। জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের সাথে একবার মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। ক্রেইগ কিসওয়েটারের বিধ্বংসী ব্যাটিং তান্তবে ইংলিশরা তোলে ২৮৪ রান। সেই ম্যাচে স্পিনাররাই সফল থাকা সত্ত্বেও ইংলিশদের রানের গতি আটকানো যায়নি। শুভ ছিলেন সেই দলের সদস্য, একটি উইকেটও পেয়েছিলেন। সেই ম্যাচে অফশনাল স্পিনারসহ মোট পাঁচজন স্পিনার নিয়ে মাঠে নেমেছিল টাইগাররা। ব্যতিক্রম ঘটবে না এবারো, তবে মিডল অর্ডার পরিবর্তনের কারণে আশরাফুলের জায়গায় শুভ খেললেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। যেমন ব্যাটিংয়ের চার নম্বর পজিশনে মুশফিকুর রহিমের জায়গায় জুনায়েদ সিদ্দিকিকে খেলানোর সম্ভাবনা রয়েছে। আবার তিন ম্যাচে দলের বাইরে থাকা শাহরিয়ার নাফীসকেও সেরা একাদশে সুযোগ দেয়ার চিন্তাভাবনা রয়েছে টিম মানেজম্যান্টের। যদিও জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে নাফীসের পরিসংখ্যান খুবই দুর্বল। এই মাঠে চারটি ম্যাচে তার সর্বচ্চো ৩৬। কোচ জেমি সিডন্স জানিয়েছেন, 'মিডল অর্ডারে একটা পরিবর্তনের কথা ভাবছি। কাল মোটামুটি ঠিক করে ফেলবো দলের কম্বিনেশন'। কাল মাঠে নামার আগে বাংলাদেশকে বেশ হিসাব কষে মাঠে নামতে হচ্ছে। কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে হলে ম্যাচ জেতার কোন বিকল্প রাস্তা নেই তাদের সামনে। কোচ সিডন্সেরও সেটি অজানা নয়, দলের কম্বিনেশনে পরিবর্তন এনে কোচ মাঠে নামাতে চাইছেন একাদশ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Conduit

Powered by Conduit

adsvert

CHITIKA

clicksor

adsgem